ফরিদপুরের সালথায় চাঁদাবাজির অভিযোগে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের স্বামী আটক

প্রথম পাতা » ছবি গ্যালারী » ফরিদপুরের সালথায় চাঁদাবাজির অভিযোগে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের স্বামী আটক
মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২



---

ফরিদপুরের সালথা উপজেলায় এক ভিক্ষুককে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাইয়ে দেয়ার কথা বলে চাঁদাবাজির অভিযোগে হায়দার মোল্যা (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। আটক হায়দার মোল্যা সালথা উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রুপা বেগমের স্বামী।

সোমবার (১৫ আগস্ট) রাতে সালথা থানা এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

অভিযোগ রয়েছে, আবদুর রহমান নামের এক ভিক্ষুককে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাইয়ে দেয়ার কথা বলে ২৫ হাজার ৫০০ টাকা নেয় উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের স্বামী হায়দার মোল্যা। পরে সেই টাকা চাইতে গেলে ওই ভিক্ষুককে বিভিন্ন সময়ে হুমকি দিয়ে আসছিল হায়দার মোল্যা ও তার ভাই। এ ছাড়া উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রুপা বেগমও বিভিন্ন লোকজন দিয়ে হুমকি-ধমকি দিচ্ছেন বলেও অভিযোগ ভুক্তভোগী ভিক্ষুকের।

এ ঘটনায় সালথা থানায় সোমবার সন্ধ্যায় চাঁদাবাজি ও হুমকির অভিযোগ এনে একটি এজাহার দায়ের করেন ভিক্ষুক আবদুর রহমান। এজাহারে উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রুপা বেগমের স্বামী হায়দার মোল্যা ও ভাই মোকাদ্দেস মাতব্বরকে আসামি করা হয়।

সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শেখ সাদিক আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, উপজেলার কুমারপট্টি এলাকার আবদুর রহমান নামের এক ভিক্ষুকের কাছে থেকে প্রধানমন্ত্রীর ঘর পাইয়ে দেয়ার কথা বলে টাকা নেয়া ও তাকে হুমকি দেয়ার অভিযোগে সালথা থানায় একটি এজাহার দায়ের করেন ওই ভিক্ষুক। পরে এজাহার দায়েরের প্রেক্ষিতে হায়দার মোল্যা নামের এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পুলিশ কাজ করছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২:৪৫:৩৬   ৯৫ বার পঠিত  




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)