বিশ্বকাপের এক ম্যাচে ‘২০ কার্ড’

প্রথম পাতা » খেলাধুলা » বিশ্বকাপের এক ম্যাচে ‘২০ কার্ড’
বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট ২০২২



---

এক ম্যাচে ১৬টি হলুদ কার্ড আর চারটি লাল কার্ড। ভাবুন তো! ২০০৬ জার্মান বিশ্বকাপে পর্তুগাল ও নেদারল্যান্ডসের মধ্যকার রাউন্ড অব সিক্সটিনে এমনি এক কলঙ্কিত ম্যাচ দেখেছিল ফুটবল বিশ্ব। ফিফা বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ সংখ্যাক কার্ড দেখা ম্যাচটি ‘ব্যাটল অব ন্যুরেমবার্গ’ নামে পরিচিত। কাতার বিশ্বকাপ শুরুর আগ পর্যন্ত খেলার সময়ে প্রতিদিন থাকছে ফিফা বিশ্ব আসরের নানা ঘটনা নিয়ে প্রতিবেদন। তারই ধারাবাহিকতায় আজ থাকছে ‘ব্যাটল অব ন্যুরেমবার্গে’র গল্প।

বিশ্বকাপ ফুটবলের ৯২ বছরের ইতিহাসে অনেক গৌরবোজ্জ্বল দিন আছে। তবে সবচেয়ে কলঙ্কময় দিনের কথা বলতে গেলে পিছিয়ে যেতে হবে ১৬ বছর আগে। ২০০৬ জার্মান বিশ্বকাপ। রাউন্ড অব সিক্সটিনে মুখোমুখি পর্তুগাল ও নেদারল্যান্ডস। কিক অফের বাঁশি বাজার পরই এক কলঙ্কিত ম্যাচ দেখে দর্শকরা।

ফুটবল গোলের খেলা। কিন্তু এই ম্যাচে বোধ হয় সেটা ভুলেই গিয়েছিলেন দুই দলের ফুটবলাররা। খেলোয়াড়রা যেন শারীরিক শক্তি প্রদর্শনীতে ব্যস্ত। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো তখন সিআর সেভেন হয়ে ওঠেননি। প্রথমার্ধেই তাকে কয়েকবার ফাউল করায়। ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়।

পর্তুগাল আর নেদারল্যান্ডস দুই দলেরই বিশ্বাকাপে ফেয়ার প্লের সুনাম আছে। এমন দুই দলের সঙ্গেই ফুটবল প্রেমীরা যা দেখলো। তা আগে দেখেনি। পুরো ম্যাচে ১৬টি হলুদ কার্ড। আর ৪টি লাল কার্ড দেখেন দুই দলের ফুটবলাররা।

ম্যাচের রেফারি ছিলেন রাশিয়ার ভ্যালেন্টিন ইভানোভ। তার এক একটি সিদ্ধান্তে মাঠে দুই পক্ষের হাতাহাতির এমন দৃশ্য দেখা গেছে কয়েকবারই। লাল কার্ড দেখেছেন পর্তুগালের কস্টইনহো, ডেকো আর নেদারল্যান্ডসের খালিদ বুলারুজ ও জিওভান্নি ফন ব্রনখোস্ট।

একটা সময় মাঠে দুই দলের ফুটবলার ছিলেন ৯ জন করে। ম্যাচটি ১-০ গোলে জিতে নেয় রোনালদোর পর্তুগাল। তবে এমন জয় অবশ্য গৌরবের চেয়ে সমালোচনাই বেশি বহন করেছে।

দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের সময় এই নুরেমবার্গ শহরেই পাঁচদিনের এক রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ হয়েছিল জার্মানি ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে। ইতিহাসে সেই ঘটনা ‘ব্যাটল অব নুরেমবার্গ’ নামে পরিচিত। কিন্তু ২০০৬ সালের সেই ম্যাচের পর থেকে, এই ম্যাচটিকে ‘ব্যাটল অব নুরেমবার্গ’ বলে আখ্যা দেয় ফুটবল বিশ্ব।

ফিফার তৎকালীন প্রেসিডেন্ট সেপ ব্ল্যাটার এই ম্যাচটিকে রাগবি ম্যাচের সঙ্গে তুলনা করেছেন। শুধু তাই নয়, ব্ল্যাটার বলেন দুর্বল পারফরম্যান্সের জন্য রেফারি নিজেকেই হ্লুদ কার্ড দেখানোর দরকার ছিল। কেননা এরপর এতো হলুদ কার্ড দেখেনি বিশ্বকাপের আর কোনো ম্যাচ।

বাংলাদেশ সময়: ১৫:৩৬:২৮   ২৪ বার পঠিত  




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

খেলাধুলা’র আরও খবর


পাকিস্তানের হারের দিন ভারতের জয়
ফাইনালে উঠেই বিশ্বকাপ ঘিরে বড় সুসংবাদ পেল টাইগ্রেসরা
ব্রাজিলের কাছে পাত্তাই পেল না ঘানা
সবার শেষে বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা স্কটল্যান্ডের
সেমিফাইনালে কাল থাইল্যান্ডের মুখোমুখি বাংলাদেশ নারী দল
ঢাকায় বীরোচিত সংবর্ধনা পেল সাফ জয়ী নারী ফুটবল দল
সাবিনাদের আরও অর্ধকোটি টাকা পুরস্কার ঘোষণা
দেশে ফিরলেন বিজয়িনীরা, উষ্ণ সংবর্ধনা
চমক দিয়ে বিশ্বকাপের দল দিলো নিউজিল্যান্ড
সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় স্পীকারের অভিনন্দন

আর্কাইভ