শ্রম আইন সংশোধন বিষয়ে আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার সঙ্গে বৈঠক আইনমন্ত্রীর

প্রথম পাতা » ছবি গ্যালারী » শ্রম আইন সংশোধন বিষয়ে আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার সঙ্গে বৈঠক আইনমন্ত্রীর
মঙ্গলবার, ১৪ মে ২০২৪



শ্রম আইন সংশোধন বিষয়ে আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার সঙ্গে বৈঠক আইনমন্ত্রীর

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক, এমপি বলেছেন, আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার প্রতিনিধিদের সঙ্গে শ্রম আইন সংক্রান্ত প্রত্যেকটা ইস্যু নিয়ে বিশদভাবে আলোচনা হয়েছে।
ঢাকায় নিযুক্ত আইএলও’র কান্ট্রি ডিরেক্টর টুওমো পোটিআইনেনের নেতৃত্বে ছয় সদস্যের প্রতিনিধি দল বৈঠকে অংশ নেন। এতে আইন ও বিচার বিভাগ এবং শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ বিভিন্ন দপ্তর ও সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অংশ নেন।
আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আমার মনে হয়, এ রকম মতবিনিময়ের মাধ্যমে আমরা যে সিদ্ধান্ত নিচ্ছি সেটা শুধু স্টেক হোল্ডারদের জন্যই ভালো নয়; এই আলোচনাটাই আন্তর্জাতিক মানের ক্ষেত্রে একটা উদাহরণ হয়ে থাকবে। আমাদের আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে।’
আনিসুল হক বলেন, আজকে আমাদের আলোচনা শেষ হয়েছে। আমরা শ্রম আইন সংশোধন করছি। আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা এ বিষয়ে কিছু সাজেশন দিতে চায়। সাজেশনগুলো মূলত তারা এই কারণে দিতে চেয়েছিল, যে আইনটি হচ্ছে, সেটি যাতে আরও আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হয় এবং আইএলও’র কমিটি অব এক্সপার্টের সাজেশনগুলো যাতে কমপ্লায়েন্ট হয়, সেই বিষয়ে তাদের বক্তব্য ছিল।
তিনি বলেন, আইএলও’র যে কো-অপারেশন সরকারের পক্ষ থেকে সেটা আমরা চালিয়ে যেতে চাচ্ছি। সেজন্যই মূলত আমরা তিন দিন ধরে সেটা (শ্রম আইনের খসড়া) এক্সারসাইজ করেছি। এখানে মূলত কিছু কিছু ইস্যু, যেগুলো আমেন্ডমেন্টে থাকার কথা বলেছেন।
আনিসুল হক বলেন, শ্রম আইন সংশোধনের বিষয়ে কিছু কিছু বিষয় এসেছিল যেটি নীতি-নির্ধারক পর্যায়ে সিদ্ধান্ত দিতে হবে। সেটি আমি বলেছি নীতি-নির্ধারণ পর্যায়ে আলোচনার মাধ্যমে সেটার সিদ্ধান্ত হবে।
তিনি আরও বলেন, কিছু কিছু বিষয় আছে ত্রিপক্ষীয় কমিটি সিদ্ধান্ত নেবে। তাদের বক্তব্য নোট করেছি, তাদের বক্তব্য সেখানে তুলে ধরব। সেখানে আলোচনার মাধ্যমে আমাদের দেশের বাস্তবতায় গ্রহণযোগ্য হবে কি না, সেই সিদ্ধান্ত আমরা নেব।
কিছু কিছু ইস্যু আছে, যেগুলো মনে হয়েছে গ্রহণযোগ্য, সেগুলো আমরা গ্রহণ করেছি। তিনি বলেন, আইএলওর কমিটি অব এক্সপার্ট আমাদের আইনটা দেখেছেন পড়েছেন, সেখানে তারা আন্তর্জাতিক মান নিয়ে কিছু সুপারিশ দিয়েছেন।
আনিসুল হক বলেন, ‘আমরা যে থ্রেডহোল্ড (ট্রেড ইউনিয়ন গঠনের ক্ষেত্রে শ্রমিকদের সম্মতির হার) ১৫ শতাংশে নিয়ে এসেছি, তারা এটির প্রশংসা করেছেন। তারা চায় এটা আরও কমে আসুক। আমরা যে বাস্তবতার কথা বলেছি; ২০১৭ সালে কমিটমেন্ট দিয়েছিলাম; এটা আমরা গ্রাজুয়ালি নামাবো। কমিটমেন্ট অনুযায়ী আমরা গ্রাজুয়েলি নামাচ্ছি।’
আইনমন্ত্রী বলেন, আমাদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে আইনটি বাংলাদেশের বাস্তবতা ও দেশে শ্রমিক অধিকার যেভাবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাস্তবায়ন, প্রতিষ্ঠা ও রক্ষা করতে চেয়েছিলেন সেভাবেই করা হচ্ছে। অবশ্যই আইনে ইমপ্রুভমেন্ট ও অ্যাডভান্সমেন্টের জায়গা সবসময় থাকবে।
তিনি আরও বলেন, আমাদের উভয়ের পক্ষের অবস্থান পরিষ্কার হয়েছে এবং উভয় পক্ষই সেই অবস্থা বুঝতে পেরেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯:৩০:৫৬   ৩২ বার পঠিত  




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

ছবি গ্যালারী’র আরও খবর


হাঁড়িভাঙ্গা আমের জন্য মিঠাপুকুরে বিশেষায়িত হিমাগার স্থাপন করা হবে : কৃষিমন্ত্রী
আলফাডাঙ্গায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত একজনের মৃত্যু
অংশীদারত্বের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার প্রশংসা জয়শঙ্ক‌রের
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা আওয়ামী লীগের বৃক্ষরোপণ
আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রায় মানুষের ঢল
জয় দিয়ে কোপা শুরু করলো চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা
ইতালিকে হারিয়ে ইউরোর নক আউট পর্বে স্পেন, ইংল্যান্ডকে রুখে দিল ডেনমার্ক
ভারতে তুফান চলবে কবে, জানা গেলো
তুরস্কে দাবানলে পাঁচজন নিহত
সিলেট-সুনামগঞ্জের ২০ নদী খনন হবে: পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

News 2 Narayanganj News Archive

আর্কাইভ