মানুষকে ভালোবাসলে সৃষ্টিকর্তাকে পাওয়া যায় : আইভী

প্রথম পাতা » ছবি গ্যালারী » মানুষকে ভালোবাসলে সৃষ্টিকর্তাকে পাওয়া যায় : আইভী
বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই ২০২৪



মানুষকে ভালোবাসলে সৃষ্টিকর্তাকে পাওয়া যায় : আইভী

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, ‘সব ধর্মে মানুষের কথা বলা হয়েছে। যদি তুমি মানুষকে ভালোবাসো তাহলে সৃষ্টিকর্তাকে পাবে। আমি এ কথা শুনেই বড় হয়েছি। মানুষের মাঝে কোনো জাত, ধর্ম নিয়ে বিভেদ নেই। মানুষকে ভালোবাসলে সৃষ্টিকর্তাকে পাওয়া যায়, আমি এই বিশ্বাস নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি।’

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বেলা ১২টায় নগরীর দেওভোগ এলাকায় সাধু নাগ মহাশয় আশ্রমের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘মহিয়সীরা বলে গেছেন, টাকা ছাড়ো, মানুষ ধরো। অর্থ সর্বনাশের মূল হয়ে যায় অনেক ক্ষেত্রে। আমার অর্থবিত্ত নাই। আমার ধর্মীয় শিক্ষা হচ্ছে মানুষকে ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা করা। আমি মানুষের মাঝে থাকতে পছন্দ করি। সৃষ্টিকর্তা বৈচিত্র্য পছন্দ করেন। তিনিই জাতি, বর্ণ, গোত্র সৃষ্টি করেছেন। সেখানে আমরা সামান্য নগন্য মানুষ বিভেদ করার কে? যিনি আমাদের সৃষ্টি করেছেন তিনি বিচার করবেন কে ভালো করেছে, কে মন্দ করেছে।’

মানুষের কল্যাণে কাজ করতে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে সিটি মেয়র বলেন, ‘আমি মনে করি, সকল মানুষের সমান অধিকার। মানবতা সেটাই যা দেখে না কে হিন্দু, কে বৌদ্ধ, কে খ্রিষ্টান, কে মুসলিম। মানবতা হলো মানুষের মাঝে তুমি খোদাকে খোঁজো। আমি সেই বিশ্বাস রেখেই সিটি করপোরেশনের দায়িত্ব পালন করছি। যত ধর্মীয় গ্রন্থ পড়ি সব জায়গায় একই কথা। সৃষ্টিকর্তা এক ও অদ্বিতীয়। অদৃশ্যকে বিশ্বাস করাই ঈমান। আমার ধর্ম মানবধর্ম। সেটা থেকে উদ্বুদ্ধ হয়েই সিটি করপোরেশনে মানুষের কল্যাণে কাজ করার চেষ্টা করেছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জে মুসলিম, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান ধর্মের বসবাস। সকলকে গুরুত্ব দিয়ে তাদের চাহিদা অনুযায়ী কাজ করে দিয়েছি। বৌদ্ধ ধর্মালম্বীরা মন্দিরের দাবি করেছিল, তাদের মন্দিরের জন্য কেন্দ্রীয় শ্মশানের পাশে জমি নির্ধারণ করেছি, আর্কিটেক্টরা কাজ করছেন। এসব কাজ করে যে মনের প্রশান্তি অনুভব হয় তা উপলব্ধি করবেন যখন জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে মানুষকে ভালোবাসতে পারবেন। যে মানুষকে ভালোবাসতে পেরেছে তার মধ্যে হিংসা, বিদ্বেষ, লোভ, ক্রোধ, মোহ, থাকতে পারে না। যে এসব জয় করতে পেরেছে সেই মানুষের মাঝে বিলীন হতে পেরেছে। যখন একজন মানুষ আরেকজনের জন্য বিলীন হয়ে যায়, তখন সে উপলব্ধি করে, সৃষ্টিকর্তাকে পেতে হলে তাকে মানুষের মাঝে বিরাজ করতে হবে। তখন আর তার কাছে হিন্দু, মুসলিমের ভেদাভেদ থাকে না।’

আইভী বলেন, ‘আমাদের দেশে অনেক ধর্মগুরু আছেন যারা কট্টরবাদী। কিন্তু সৃষ্টিকর্তার কাছে কট্টরের কোনো স্থান নাই। উনি যেখানে মানুষে মানুষে বাচ-বিচার করেন না সেখানে আমরা কে? আমাদের দিন দিন নিজের মধ্যে বন্দি করে রাখা হচ্ছে। বলা হচ্ছে, তুই শ্রেষ্ঠ। আসলে সকল মানুষই শ্রেষ্ঠ। আল্লাহ মানুষকে ভালোবেসে এই পৃথিবী সৃষ্টি করেছে। ধর্মের বিচারের আগে কর্মের বিচার হবে।

আমি মনে করি, আমাদের মধ্যে সহনশীলতা, ভালোবাসা থাকা উচিত। আর বিচারের ভার যিনি সৃষ্টি করেছেন তার উপর ছেড়ে দেয়া উচিত। আপনি-আমি বলার কেউ না। কথায় কথায় বেদাত, কাফের এসব আল্লাহর কাছে নাই। সৃষ্টিকর্তা জানেন, কে কাফের কে কাফের না। এই বাংলায় প্রত্যেক ধর্মের পথ প্রদর্শকরা এসেছেন। যারা একত্ববাদ, মানুষকে ভালোবাসার কথা বলেছেন।’

সিটি মেয়র বলেন, ‘ছোটবেলা থেকে আব্বা-মায়ের কাছে বিভিন্ন ধর্মের কথা শুনে এসেছি। মা সব সময় বলতেন, যার যার হিসাব সে সে দিবে। কোনো ধর্মের প্রতি অশ্রদ্ধা, অসম্মান করবা না। তোমার কথা তুমি বলবা। কে কী বললো সেটার দিকে তাকাবা না। আমি বাবা-মায়ের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে এই কাজটি করতে চেয়েছি। অনেকদিন পর আমার আশাপূর্ণ হচ্ছে। আমি সকল ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বলতে চাই, সৃষ্টিকর্তা যেন আমাকে আপনাদের মাঝে বিরাজমান রাখে। জাতি ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে আমি যেন সকলের উপকার করতে পারি, পাশে দাঁড়াতে, সেবা করতে পারি।’

এই সময় আরও উপস্থিত ছিলেন রামকৃষ্ণ মিশনের অধ্যক্ষ স্বামী একনাথানন্দ, নাসিক ১৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর অসিত বরণ বিশ্বাস, ১৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান মনির, সাধুনাগ মহাশয় আশ্রমের সাধারণ সম্পাদক তারাপদ আচার্য্য, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আদিনাথ বসু, জিএম আরাফাত, মহানগর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলী রেজা উজ্জ্বল, সিনিয়র সহসভাপতি কামরুল হুদা বাবু, শিশু সংগঠন শাপলা কুঁড়ির জেলা সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মোতালিব, ব্যবসায়ী ননী গোপাল সাহা, পরিতোষ কান্তি সাহা।

বাংলাদেশ সময়: ২৩:২১:১৯   ৫২ বার পঠিত  




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

ছবি গ্যালারী’র আরও খবর


জনপ্রতিনিধি ও সরকারি কর্মকর্তারাই উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়নের চালিকাশক্তি - ধর্মমন্ত্রী
দেশে ফিরলেন প্রায় ৬৬ হাজার হাজি, মৃত্যু বেড়ে ৬৪
বড় জয়ে অ্যান্ডারসনের বিদায় রাঙালো ইংল্যান্ড
প্রকৃতির মুগ্ধতা নিতে জলপ্রপাতে সাবিলা, সঙ্গে কে?
সচেতনতার অভাবে অনেক মানুষ বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হচ্ছে : প্রধান বিচারপতি
গাজায় ‘যুদ্ধাবসানের সময় এসেছে’: বাইডেন
রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুতে ইতিবাচক মিয়ানমার, মোদির সাথে বিমসটেক পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সাক্ষাত
ইংলিশ চ্যানেলে নৌকা ডুবে ৪ অভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃত্যু
জামালপুরে আবারও বাড়ছে পানি, বানভাসিদের দুর্ভোগ
পানির নিচে নিউমার্কেট, কয়েক কোটি টাকার ক্ষতির মুখে ব্যবসায়ীরা

News 2 Narayanganj News Archive

আর্কাইভ