যে ৩ কারণে আশ্বিনের শেষেও এত বৃষ্টি

প্রথম পাতা » ছবি গ্যালারী » যে ৩ কারণে আশ্বিনের শেষেও এত বৃষ্টি
শুক্রবার, ৬ অক্টোবর ২০২৩



যে ৩ কারণে আশ্বিনের শেষেও এত বৃষ্টি

বর্ষাকাল শেষে প্রকৃতিতে এখন শরৎ। আশ্বিনের শেষ, অপেক্ষায় শীতের আগমন। ভরা বর্ষা মৌসুম বৃষ্টিহীনতায় কাটলেও আশ্বিনের এমন সময়ে এসে দেখা মিলেছে টানা বৃষ্টির। কখনও ঝিরিঝিরি কখনও মুষলধারে শুরু হওয়া বৃষ্টি রাজশাহী ডুবিয়ে এবার ময়মনসিংহ অঞ্চলে। আবহাওয়া অফিস বলছে, এখন এটি সিলেটের দিকে এগোচ্ছে। ফলে আজ ও আগামীকাল ওই এলাকায় বেশি বৃষ্টির আশঙ্কায় আছে।

বর্ষার শেষে এসে এমন অঝোর ধারার বৃষ্টির প্রসঙ্গে আবহাওয়া গবেষকরা সংবাদমাধ্যমের কাছে মূলত তিনটি কারণের কথা বলছেন। এবার বর্ষার শেষ সময়ে এসে তা হওয়ার কারণেই অল্প সময়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে রেকর্ড পরিমাণ বৃষ্টি হচ্ছে।

প্রথমত, চলতি মাসের শুরুর দিকে বঙ্গোপসাগর ও আরব সাগরে একই সময়ে দুটি নিম্নচাপ সৃষ্টি হয়েছিল। দুটি একত্র হয়ে ভারতের সিকিম হয়ে বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল দিয়ে রাজশাহীতে প্রবেশ করে। আর তাই বৃহস্পতিবার রাজশাহীতে প্রচুর বৃষ্টি হয়েছে। পরে এটি আরও শক্তিশালী হয়ে ময়মনসিংহ হয়ে কিশোরগঞ্জ-ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দিকে যায়। ওই অঞ্চলেও রেকর্ড পরিমাণ বৃষ্টি ঝরেছে। এখন এটি সিলেটের দিকে এগোচ্ছে। ফলে আজ ও আগামীকাল ওই এলাকায় বেশি বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।

দ্বিতীয়ত, বঙ্গোপসাগরে ভারত মহাসাগর দ্বিচক্র-আইওডি সক্রিয় হয়ে উঠেছে। এটি সক্রিয় হলে সাগরের মাঝখানের অংশ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। ওই বায়ু বঙ্গোপসাগর থেকে প্রচুর জলীয় বাষ্প ও বাতাস বাংলাদেশের দিকে নিয়ে আসছে। ফলে এখানে বৃষ্টি বেড়ে গেছে।

তৃতীয়ত, মৌসুমি বায়ু বিদায় নেয়ার সময়ে অগ্রভাগ এবং পশ্চাদ্ভাগে জলীয় বাষ্প এবং মেঘ বেশি থাকে। ফলে জুনের মাঝামাঝি এটি যখন টেকনাফ দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে তখন প্রচুর বৃষ্টি হয়। আর উত্তর-পূর্বাঞ্চল দিয়ে যখন বাংলাদেশ ছেড়ে যায় তখনও প্রচুর বৃষ্টি হয়। সাধারণত অক্টোবরের মাঝামাঝি তা বাংলাদেশ ভূখণ্ড ছেড়ে যায়। এ কারণে এখন বেশি বৃষ্টি হচ্ছে।

এদিকে, সক্রিয় মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আজও বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। জানিয়েছে, আগামীকাল শনিবার থেকে বৃষ্টির তীব্রতা কমতে পারে। এ ছাড়া সাগর কিছুটা উত্তাল থাকায় দেশের তিন সমুদ্রবন্দর ও কক্সবাজার উপকূলকে ৩ নম্বর সতর্কসংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এ ছাড়া বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে আজ সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ময়মনসিংহে ৩৭৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, স্বাধীনতার পর ময়মনসিংহে এটি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বৃষ্টি।

ওই বিভাগের পার্শ্ববর্তী হাওড়বেষ্টিত জেলা নেত্রকোনায়ও ৩৫১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অফিস। কিশোরগঞ্জের হাওড় উপজেলা নিকলীতেও বৃষ্টি হয়েছে ৩১১ মিলিমিটার। এর আগে বুধ ও বৃহস্পতিবারের ভারি বৃষ্টিতে ভেসেছে উত্তরের বিভাগীয় শহর রাজশাহী। বুধবার দুপুর ১টা থেকে বৃহস্পতিবার দুপুর ১টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ২৪৫ দশমিক ৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আবহাওয়া অফিসের তথ্যমতে, গত ১০ বছরের মধ্যে এটি রাজশাহীতে এক দিনে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত।

বাংলাদেশ সময়: ১৬:১১:৫৪   ১১৬ বার পঠিত  




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

ছবি গ্যালারী’র আরও খবর


রাফায় ইসরায়েলি হামলায় তাঁবুর ভেতর জ্যান্ত পুড়ে নিহত অন্তত ৩৫
বরিশালে দেয়াল ধসে ২ জনের মৃত্যু
বিএনপি নেতাকর্মীরা দুর্যোগে সহযোগিতার নামে ফটোসেশন করে : কাদের
প্রিমিয়ার লিগে ফিরল সাউদাম্পটন
যুক্তরাষ্ট্রে টর্নেডোর তাণ্ডবে ১৮ জনের মৃত্যু, ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ
সোনারগাঁয়ে অ্যাম্বুলেন্সের দুর্ঘটনায় বহনকারী রোগীর মৃত্যু
রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৩২
ঘূর্ণিঝড় রেমালের তান্ডবে প্রাণ গেল ৭ জনের
ইতিহাসের এই দিনে
আজকের রাশিফল

News 2 Narayanganj News Archive

আর্কাইভ