আবারও উৎপাদনে যাচ্ছে চাঁদপুরের কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ কেন্দ্র

প্রথম পাতা » অর্থনীতি » আবারও উৎপাদনে যাচ্ছে চাঁদপুরের কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ কেন্দ্র
শনিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪



আবারও উৎপাদনে যাচ্ছে চাঁদপুরের কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ কেন্দ্র

আবারও চালু হতে যাচ্ছে চাঁদপুর ১৫০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র। গত বছরের মার্চ মাসে রক্ষণাবেক্ষণ করতে গিয়ে বড় ধরণের ত্রুটি ধরা পড়ে। এতে প্রায় এক বছর পুরোপুরি বন্ধ ছিল গ্যাস নির্ভর রাষ্ট্রীয় পরিচালনায় এ বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র। তবে এরইমধ্যে আমেরিকা থেকে নতুন যন্ত্রাংশ এ কেন্দ্রে পৌঁছেছে। তাই দিনরাত মেরামতের কাজ করছেন সংশ্লিষ্ট দেশি-বিদেশি প্রকৌশলীরা। এমন পরিস্থিতিতে কর্তৃপক্ষ আশা করছেন, রোজার শুরুতেই জাতীয় গ্রিডে এ কেন্দ্র থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা সম্ভব হবে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, প্রকৌশলী এবং তাদের সহযোগীরা বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন। শুধু দেশি নয়, এতে যোগ দিয়েছেন বিদেশি প্রকৌশলীরাও।

তারা জানান, বিকল হওয়া গ্যাস বুস্টার ছাড়াও আরও কিছু যন্ত্রাংশ রয়েছে। যেগুলোও প্রতিস্থাপন ও কিছু মেরামতের করতে হবে। কারণ, প্রায় ১ বছর পুরোপুরি বন্ধ প্রাকৃতিক গ্যাস নির্ভর চাঁদপুর ১৫০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র। তাই এটি চালু করতে তারা দিনরাত কাজ করছেন।

কেন্দ্র সংশ্লিষ্টরা জানান, ২০২২ সালের শেষ দিকে নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণের কাজ চলছিল। এরমধ্যে গ্যাস সঞ্চালন বুস্টারের যন্ত্রাংশে ত্রুটি ধরা পড়ে। ফলে গত বছরের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ২টি ইউনিটের ১টি আংশিক চালু ছিল। এর মধ্যে পরের মাসে বড় ধরণের ত্রুটি ধরা পড়লে ২টি ইউনিটই বন্ধ হয়ে যায়। ফলে এই কেন্দ্র থেকে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ সরবরাহ আর সম্ভব হয়নি।

তবে, প্রায় এক বছর বন্ধ থাকা প্রাকৃতিক গ্যাস নির্ভর এ বিদ্যুৎ উৎপাদন আবারও চালুর তোড়জোড় শুরু হয়। এরইমধ্যে চলতি মাসে আমেরিকা থেকে নতুন যন্ত্রাংশ পৌঁছেছে এই কেন্দ্রে। আর গ্যাস সঞ্চালনের সেই যন্ত্রাংশ এবং আরও কিছু নতুন যন্ত্র প্রতিস্থাপনের কাজ শুরু করেছেন প্রকৌশলীরা। তাই দিনরাত একটানা কাজ করছেন তারা। যাতে দ্রুত সময়ের মধ্যে উৎপাদনে ফিরে যেতে পারে কেন্দ্রটি।

কেন্দ্র ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মোহাম্মদ নূরুল আবছার জানান, বিকল হওয়া গুরুত্বপূর্ণ যন্ত্রাংশগুলো দেশের বাইরে থেকে সংগ্রহ করতে এরআগে দরপত্র আহ্বান করেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। আর সুদূর আমেরিকা থেকে ঠিকাদারের মাধ্যমে তা দেশে আসার পর এসব যন্ত্রাংশ প্রতিস্থাপন চলছে এবং নির্ধারিত সময়ের মধ্যে এ কেন্দ্র উৎপাদনে যেতে সক্ষম হবে। রোজা শুরুর আগেই কেন্দ্রটি উৎপাদনে যেতে সক্ষম হবে।

দুটি ইউনিটে মোট ১৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে সক্ষম প্রাকৃতিক গ্যাস নির্ভর এ কেন্দ্র চালু হয় বিগত ২০১২ সালে। যা চালু হওয়ার পর চাঁদপুরের বিদ্যুৎ চাহিদা মিলিয়ে জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হয়। এর আগে ২০১০ সালের ২৫ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাঁদপুরে এসে এ বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬:০৭:৪৯   ৫৫ বার পঠিত  




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

অর্থনীতি’র আরও খবর


ব্যাংকিং খাতে অনাদায়ি ঋণ ৫ লাখ ৫৬ হাজার কোটি টাকা
পুঁজিবাজারে জেন্ডার গ্যাপ দূর করতে হবে - স্পীকার
দপ্তর ও সংস্থা সমূহের ইনোভেশন জনগণের স্মার্ট আর্থিক সেবা নিশ্চিত করবে : অর্থ প্রতিমন্ত্রী
প্রান্তিক পর্যায়ে দক্ষ এসএমই উদ্যোক্তা তৈরি করতে হবে : অর্থ প্রতিমন্ত্রী
বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় সরকার নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে গুরুত্ব দিচ্ছে : অর্থ প্রতিমন্ত্রী
২ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকার এডিপি অনুমোদন
সেবা দিতে সময় বেঁধে দেবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়!
জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্র-ইস্টার্ন ব্যাংকের চুক্তি
রূপায়ণ সিটির সঙ্গে ডেলকো বিজনেস অ্যাসোসিয়েটের চুক্তি স্বাক্ষর
ড্যাপ সংশোধন চান আবাসন ব্যবসায়ীরা

News 2 Narayanganj News Archive

আর্কাইভ